1. admin@kholanewsbd24.com : admin :
রবিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২২, ০২:২৩ অপরাহ্ন
রবিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২২, ০২:২৩ অপরাহ্ন

লামায় পাহাড়ি গৃহহীনরা পাচ্ছে উপহারের মাচাং ঘর

প্রশাসন
  • সময় : শনিবার, ১৯ নভেম্বর, ২০২২
  • ২২ বার পঠিত

বিপ্লব দাশ,লামা প্রতিনিধিঃ
দরিদ্র ও ভূমিহীনদের জন্য রাষ্ট্রীয়ভাবে ঘর উপহার দেয়ার দৃষ্টান্ত বিশ্বে বিরল। সারা দেশে এসব উপহারের ঘর সেমিপাকা হলেও পাহাড়ের বাস্তবতায় নকশায় পরিবর্তন আনা হয়েছে। বান্দরবান সহ তিন পার্বত্য জেলার বিভিন্ন উপজেলায় পাহাড়িদের ঐতিহ্যের সঙ্গে মিল রেখে মাচাং ঘর নির্মাণ করে দেয়া হচ্ছে দরিদ্রদের। উপহারের ঘর পাওয়া পাহাড়ের গৃহহীন দরিদ্র পাহাড়ি জনগোষ্ঠি প্রধানমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন।

বান্দরবান জেলার লামা উপজেলার ১৫ টি পাহাড়ি পরিবার পাচ্ছেন ঐতিয্যবাহী উপহারের মাচাং ঘর এর মধ্যে লামা ০২ নং সদর ইউনিয়নে ০৮ টি,রুপসীপাড়া ইউনিয়নে ০৫ টি ও ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নে ০২ টি ঘর।

ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানরা জানান,পাহাড়ের সব ইউনিয়নে দরিদ্র ও ভূমিহীন গৃহহীন পরিবার গুলোকে প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ উপহারের ঘর প্রদান কার্যক্রম চলমান রয়েছে। প্রকল্পের প্রথম থেকে তৃতীয় পর্যায় পর্যন্ত উপহারের ঘর হিসেবে সেমিপাকা ঘর নির্মাণ করা হয়েছে। তবে বর্তমান চতুর্থ পর্যায় থেকে ভূমিহীন ও গৃহহীনদের জন্য পাহাড়ের ঐতিহ্যবাহী মাচাং ঘর তৈরি করে দেয়া হচ্ছে । যা পাহাড়ি পরিবেশের জন্য টেকসই ও পরিবেশ বান্ধব বলে জানান ইউনিয়ন চেয়ারম্যানরা।

সরেজমিনে লামা ২নং সদর ইউনিয়নে ৫ নং ওয়ার্ডের মৈউলারচর মার্মা পাড়ায় দেখা যায়,নবনির্মিত পাহাড়ের ঐতিহ্যবাহী নকশায় একটি নতুন ঘর নির্মাণ করা হয়। ঘরটির কাঠের মেঝে মাটি থেকে আনুমানিক তিন-চার ফুট উঁচু। উত্তরমুখী ঘরটির সামনের অংশে বারান্দা ও পেছনে দক্ষিণ-পশ্চিম কোণে রান্না ঘর। বাঁশের বেড়া, কাঠের বাটামে বাঁধানো ছিমছাম ঘরটির টিনে ছাউনি।

এ ঘরটি পাড়ার ভূমিহীন কেলাপ্রু মারমার নামে বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। তার স্ত্রী মেপ্রু মার্মা বলেন,আমরা গরিব মানুষ আমাদের ভালো ঘর ছিল না। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাদের খুব সুন্দর ঘর বেঁধে দিয়েছেন। আমি খুব খুশি হয়েছি। এখন পরিবারের সবাই সুখে-শান্তিতে বসবাস করতে পারব। প্রধানমন্ত্রী কে ধন্যবাদ জানান।

লামা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃমোস্তফা জাবেদ কায়সার জানান,পাহাড়ি ঐতিহ্য কৃষ্টি সংরক্ষণ করার জন্য প্রধানমন্ত্রীর অভিপ্রায় অনুযায়ী আমরা মাচাং ঘর করে দিচ্ছি। যেহেতু দুর্গম পাহাড়ে বসবাস করেন তাই মাচাং ঘর হওয়ায় বিভিন্ন ধরনের জীবজন্তু থেকে ও নিরাপদে থাকতে পারবেন। মাচাং ঘরে বসবাস করে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২১ খোলা নিউজ বিডি ২৪
Themes Customize By Shakil IT Park