1. admin@kholanewsbd24.com : admin :
রবিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২২, ১২:১০ অপরাহ্ন
রবিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২২, ১২:১০ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
ভোরের কাগজের দেশসেরা সাংবাদিক নোয়াখালীর সোহেল প্রশাসনকে বৃদ্ধাঙ্গুল দেখিয়ে আলীকদম এবং নাইক্ষ্যংছড়ি পাহাড়ি সীমান্তে দিয়ে এসে প্রতিদিন দেশের বিভিন্ন প্রান্তে যাচ্ছে শত শত অবৈধ গরু মহিষ ইবিতে আন্তঃবিশ্ববিদ্যালয় হ্যান্ডবল ও ভলিবল প্রতিযোগিতা শুরু লালমনিরহাটে ইউনাইটেড গোল্ডেন সিটিজেনস ফাউন্ডেশন ক্রিকেট দলের অনুশীলন ক্যাম্পের সমাপনী অনুষ্ঠান নেত্রকোনার কলমাকান্দায় রোটা ভাইরাসের সংক্রমণ সভাপতি ইকবাল হোসেন জুয়েল সাধারণ সম্পাদক আবু কাউসার চৌধুরী রন্টি তুরাগতীরে অনুষ্ঠিত হচ্ছে জোড় ইজতেমার আনুষ্ঠানিক কার্যক্রম দিনাজপুরে আদিবাসী ও দলিত সম্প্রদায়ের জীবন মান উন্নয়নে গণশুনানি অনুষ্ঠিত ময়মনসিংহ জেলা ও মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক হলেন যারা জমি নিয়ে বিরোধঃ বড় ভাইয়ের জমির ৬ শতাধিক গাছ উপড়ে ফেললো ছোট ভাই!

মুক্তাগাছা সরকারী হাসপাতালের ডাঃ মহসিনের বিরুদ্ধে চিকিৎসা সেবা নিয়ে নানা অভিযোগ

প্রশাসন
  • সময় : সোমবার, ১৪ নভেম্বর, ২০২২
  • ১৬২ বার পঠিত

স্টাফ রিপোর্টার।

ময়মনসিংহের মুক্তাগাছা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্মরত ডাঃ
মহসিনের বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ তুলেছে সেবাভোগীরা।
মহসিন মুক্তাগাছা শহরের মহারাজা রোডস্থ স্থানীয় বাসিন্দা হওয়ার সুবাদে নিজ জায়গা মুক্তাগাছা মহারাজা রোডে ” মুক্তাগাছা ডক্টরস কেয়ার নামে প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলেছেন। ফলে হাসপাতালে সেবা নিতে আসা রোগিদের সাথে অশোভন ও রুক্ষ আচরণ করেন এবং ভালো চিকিৎসা সরকারী হাসপাতালে হয়না এই মর্মে তার নিজ প্রতিষ্ঠান মুক্তাগাছা ডক্টরস কেয়ার চেম্বারে যেতে উদ্ভুদ্ধ করেন।
হাসপাতালে চিকিৎসা সেবা নিতে আসা রোগীদের সেবা প্রদানে দায়িত্ববিমূখ ও অনিহা বোধ করেন। নিজের পছন্দের ক্লিনিকগুলোতে
যোগসাজেস করে রোগী পাঠান তিনি । অপরদিকে বিভিন্ন সময় নানা অজুহাতে অনেক ক্লিনিক মালিকদের হয়রানিও করেন। এমনটিই অভিযোগ করেছেন স্থানীয় রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ,ক্লিনিক মালিক ও হাসপাতালে চিকিৎসা সেবা নিতে আসা সেবা প্রত্যাশী সহ নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক অনেকেই।
নানা কারণে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তার সাথে তার একটা সক্ষতা গড়ে উঠেছে বলেও অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে। যার ফলে তার ইশারাতেই চলছে মুক্তাগাছা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসা সেবা।

জানা গেছে ,ডাক্তার মহসিন ও তার স্ত্রী ডাক্তার তানিয়া আফরিন দুইজনই মুক্তাগাছা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে মেডিকেল অফিসার হিসাবে কর্মরত রয়েছেন। ডাক্তার মহসিন মেডিসিন বিভাগে এবং তার স্ত্রী গাইনী বিভাগের ডাক্তার। রোগীদের সিরিয়ালে রেখে ঔষধ কোম্পানীর রিপ্রেজেনটেটিভ প্রতিনিধিদের সাথে রফাদফায় আলোচনায় আলাপচারিতায় মশগুল থাকেন।

চাকুরীর পশাপাশি নিয়মিত রোগী দেখতে উপজেলার মহারাজা রোডে মুক্তাগাছা ডক্টরস কোয়ার নামে নিজস্ব সেবা কেন্দ্রে চিকিৎসা সেবার নামে স্বামী-স্ত্রী মিলে পৌর শহরে নিজেদের চেম্বার খুলে গড়ে তুলেছেন চিকিৎসা বাণিজ্য এমনটিই অভিযোগ করেছেন উপজেলার স্থানীয় বাসিন্দা পৌরশহরের আরজু নামের ভোক্তভোগী, কুমারগাতার নিলুফা আক্তার,ঘোগা ইউনিয়নের মুন্নি আক্তার,খেরুয়াজানীর রোজিনা আক্তার।

এছাড়ও ক্লিনিক মালিকদের দু”একজনের যোগসাজসে অন্য ক্লিনিক মালিকদের বিভিন্নভাবে হয়রানি করা ,পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য পছন্দের ক্লিনিকগুলোতে পার্সেন্টিস রসদ পেয়ে রোগী পাঠান তিনি। এমন অভিযোগ তোলে ক্ষোভ প্রকাশ করে স্থানীয় একটি বিদ্যালয়ের শিক্ষক বলেন,আমার স্ত্রীকে নিয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ডাক্তার মহসিনের কাছে গেলে তিনি আমার স্ত্রীর সাথে অনেক খারাপ আচরণ করেন। তিনারা ডাক্তার হয়েছেন বলে রোগীদেরকে মানুষাই মনে করেন না। আমাদের সাথেই যদি তাদের এমন আচরণ হয়,তাহলে সাধারণ রোগীদের সাথে কেমন আচরণ করেন একটু ভেবে দেখলেই উপলব্ধি করা যায়।
ভূক্তভোগী নিলুফা আক্তার বলেন,শারীরিক দুর্বলতা ও মাথা ব্যাথার চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে টিকিট কেটে মহসিন (ডাক্তারের কাছে গেলে তিনি বলেন,সরকারি হাসপাতালে কি এর চেয়ে ভালো চিকিৎসা হয়? আমার চেম্বারে আসেন ভালো করে দেখবো।
ডাক্তার মহসিনের বিরুদ্ধে অভিযোগ এনে মুন্নী আক্তার বলেন,ওনার কাছে যাওয়া মাত্র অনেক ঝাড়িটারি মেরে বলেন,এখানে চিকিৎসা এমনিই হবে,ভালো চিকিৎসা নিতে হলে বিকালে আমার চেম্বারে আসবেন।
এ বিষয়ে ক্লিনিক মালিকদের সাথে কথা বলা হলে অধিকাংশ ক্লিনিক মালিক ক্ষোভে ও ভয়ে বলেন, উপজেলা স্বাস্থ্যখাত তার ইশারায় চলে এ কথা ঠিক কিন্তু এ বিষয়ে মুখ খুললে বা কথা বললে পরের দিনই আমাদের ক্লিনিক নানা অজুহাতে জরিমানা বা সিলগালা করা হবে।
সচেতন মহল বলছেন হাসপাতালের চিকিৎসা সেবা এর আগে মোটামুটি ভালো থাকলেও মহসিন ডাক্তারের আচরণগত ও বানিজ্যিক মনোভাবের কারণে হাসপাতালের সুনাম বিনষ্ট হচ্ছে ও চিকিৎসা সেবার মান কমছে।
এবিষয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স মুক্তাগাছা, পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ জান্নাতুল ফেরদৌস জানান, হাসপাতালের এমন কারো বিরুদ্ধে কেউ এধরণের লিখিত অভিযোগ দিলে তদন্ত করে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২১ খোলা নিউজ বিডি ২৪
Themes Customize By Shakil IT Park