1. admin@kholanewsbd24.com : admin :
রবিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২২, ০৩:২৮ অপরাহ্ন
রবিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২২, ০৩:২৮ অপরাহ্ন

মহাসড়কে হাইকোর্টের নির্দেশ শুধু একটা সাইনবোর্ড

প্রশাসন
  • সময় : শুক্রবার, ৪ নভেম্বর, ২০২২
  • ৫৭ বার পঠিত

নাজমুল হক
স্টাফ রিপোর্টার

মহামান্য হাইকোর্ট এর নির্দেশ শুধু যেন একটা সাইনবোর্ড ছাড়া কিছু-ই নয় গাজীপুর সড়ক ও জনপদ বিভাগের।

বর্তমান সময়ে ঢাকা- ময়মনসিংহ মহাসড়ক গাজীপুর চৌরাস্তা থেকে পোড়াবাড়ি পর্যন্ত মহাসড়কের কাঁধ ঘেঁষে কি নেই কিংবা কি ধরেনর ব্যবসা প্রতিষ্ঠান নেই তা পরিসংখ্যান করা জটিল।

মহাসড়ক ব্যবহারে ক্ষেত্রে বিধি-নিষেধ এর অনুচ্ছেদ ৯ এ ১৮টি বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে।
উল্লেখিত বিধি-নিষেধে প্রথমেই বলা হয়েছে, ফসল, বা কোন পণ্য শুকানো বা অনুরুপ কোন কাজে মহাসড়ক ব্যবহার করা যাবেনা।

বিধি -নিষেধে আরো বলা আছে মহাসড়কের নির্ধারিত স্থান ব্যতীত অন্য কোনো স্থান দিয়া পদযাত্রা করা যাইবে না বা এই আইনের অধীন অনুমোদিত উদ্দেশ্য ব্যতীত অন্য কোনো উদ্দেশ্যে মহাসড়কের কোনো স্থানে অবস্থান করা যাইবে না।

অনুচ্ছেন ৯ এর ১৪ ও ১৫ নম্বরে আরো বলা আছে মহাসড়কে চলাচলকারী কোনো ব্যক্তি বা যানবাহনের জন্য বিপজ্জনক বা ক্ষতির কারণ হইতে পারে এইরূপ কোনো বস্তু বা প্রতিবন্ধকতা মহাসড়কে স্থাপন করা যাইবে না। সড়ক বা মহাসড়ক সংশ্লিষ্ট কোনো অংশে নির্মাণ সামগ্রী রাখা যাইবে না।

সরজমিনে দেখা যায়, লাল বালির গদি আছে পোরাবাড়ি থেকে তেলিপাড়া পর্যন্ত মহাসড়কে শতাধিক। এছাড়াও তেলিপাড়া হতে পোড়াবাড়ি পর্যন্ত মহাসড়কে রয়েছে ছোট বড় যানবাহনের বডি তৈরী ও মেরামতের অর্ধশতাধিক প্রতিষ্ঠান। যারা মহাসড়ক ব্যবহার করেই চালাচ্ছেন তাদের প্রতিষ্ঠান। চায়ের দোকান থেকে শুরু করে বিভিন্ন গ্রুপ অব লজিস্টিক কোম্পানির যানবাহন থেকে তেল ক্রয় করার অবৈধ দোকান বিদ্যমান।

সম্প্রতি ১৫ অক্টোবর তেলিপাড়া ফারিস্তার সামনে সড়ক দুর্ঘটনায় চার জনের প্রাণহানী হয় বসুমতী পরিবহনের ধাক্কায়। এর পর কয়েক দিন বন্ধ ছিলো তেলিপাড়া মহাসড়কে বসুমতী ও অনাবিল পরিবহনের পার্কিং। অনাবিল ও বসুমতী পরিবহনের গাজীপুরে মহাসড়ক ছাড়া পরিবহন মালিকদের কোন নির্ধারিত পার্কিং স্থান নেই। এই দুইটি পরিবহন জন্মের শুরু হয় মহাসড়কে পার্কিং এর মাধ্যমে। অদ্যবদি পর্যন্ত মহাসড়ক ব্যবহার করেই করছে পার্কিং।

এসকল বিষয়ে গাজীপুর সড়ক বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী’র বক্তব্য নিতে গেলে পোহাতে হয় বিপত্তি। গাজীপুর সড়ক বিভাগে অতিথিদের জন্য কোথায় বসার স্থান কিংবা অপেক্ষাগার নেই। দীর্ঘ সময় দাড়িয়ে থেকে পূনরায় চিরকুট লিখে পাঠানোর পরে দেখা করা অনুমতি দিলেন নির্বাহী প্রকৌশলী।

এসময় তিনি খোলা নিউজ বিডি কে নির্বাহী প্রকৌশলী খঃ মো. শরিফুল আলম বলেন, মহাসড়কে যারা বালি ব্যবসার সাথে জড়িত তাদের খুজে পাওয়া যায় না। বসুমতী ও অনাবিল পরিবহনের বিষয়ে খুঁজ নেবেন। যানবাহনের বডি তৈরী প্রতিষ্ঠান গুলোর বিষয়ে তিনি প্রতিবেদকের কাছে জানতে চায় , প্রতিষ্ঠান গুলো মহাসড়কে কাঁধে আছেন কি না বা মহাসড়ক ব্যবহার করছেন কি না ?

তিনি আরো বলেন মহাসড়কে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করলে কাউকে পাওয়া যায় না। ভ্রাম্যমাণ আদালতের অনেক খরচ আছে। সেদিক বিবেচনা করেই পদক্ষেপ নিতে হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২১ খোলা নিউজ বিডি ২৪
Themes Customize By Shakil IT Park