1. admin@kholanewsbd24.com : admin :
বুধবার, ০৫ অক্টোবর ২০২২, ১০:৩৬ অপরাহ্ন
বুধবার, ০৫ অক্টোবর ২০২২, ১০:৩৬ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
গঙ্গাচড়ায় মামলাবাজ মহিলার অত্যাচারে অতিষ্ঠ এলাকাবাসী জনপ্রিয়তার শীর্ষে চেয়ারম্যান প্রার্থী মোঃ হামিদুল ইসলাম। নোয়াখালীতে বিয়ে বাড়ীতে কিশোরীর সর্বনাশ করলো মামাত ভাই পদ্মা আবাসিকের আমজাদকে মহাসড়কে সন্ত্রাসীদের দায়ের কোপে আহত নোয়াখালীর সেনবাগে যুবকের আত্মহত্যা ঠাকুরগাঁওয়ে বালিয়াডাঙ্গীর শাকিল হত্যা মামলার আসামি এক মাস ধরে পলাতক, ইউপি চেয়ারম্যানকে খুঁজছে পুলিশ ! গাজীপুর মহানগরের বিভিন্ন পূজা মন্ডপ পরিদর্শন করলেন কামরুল আহাসান সরকার রাসেল ঠাকুরগাঁওয়ে রাণীশংকৈলে বৈদ্যুতিক স্পর্শে প্রাণ গেল যুবকের! ঠাকুরগাঁওয়ে রাণীশংকৈলে বিএসএফ’র গুলিতে বাংলাদেশী যুবক আহত । ঠাকুরগাঁও থেকে অপহৃত স্কুল ছাত্রী গাজীপুর থেকে উদ্ধার —আসামীরা পলাতক !

রাজশাহীর মোহনপুরে গ্রেপ্তার আতঙ্কে পুরুষ শূন্য তেঘরমাড়িয়া গ্রাম : চুরির আতঙ্কে নারীরা

প্রশাসন
  • সময় : সোমবার, ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০২২
  • ১৬ বার পঠিত

স্টাফ রিপোর্টার, রাজশাহী : রাজশাহীর মোহনপুর উপজেলার জাহানাবাদ ইউনিয়নের তেঘরমাড়িয়া গ্রামে বিবাদমান দু’গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় মামলা ও পাল্টাপাল্টি অভিযোগের
পর থেকে পুলিশের গ্রেপ্তার আতঙ্কে পুরুষ শূন্য হয়ে পড়েছে গ্রামটি। চুরির আতঙ্কে রয়েছেন নারীরা।
স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, তেঘরমাড়িয়া গ্রামের গভীর নলকূপকে কেন্দ্র করে ওই গ্রামের মুনসুর রহমান ও আওয়ামী নেতা বাক্কার আলী গ্রুপের মধ্যে প্রায় ৩/৪ বছর ধরে বিরোধ চলে অাসছে। ওই বিরোধের জের ধরে গত শুক্রবার সকাল ১০ টার সময় সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে নারী-পুরুষসহ প্রায় ১৫ জন আহত হন। আহতরা রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে ভর্তি হয়ে চিকিৎসা নিচ্ছেন।
এ ঘটনায় উভয়পক্ষ মোহনপুর থানায় পাল্টাপাল্টি অভিযোগ দায়ের করেছেন।
আজ সোমবার (১৯ সেপ্টেম্বর) সকালে সরেজমিনে তেঘরমাড়িয়া গ্রামে গিয়ে দেখা গেছে, নারী এবং ছোট বাচ্চা এছাড়া কোন পুরুষ মানুষের দেখা মিলেনি। ওই গ্রামে প্রায় ৭০/৮০ টি পরিবার বসবাস করেন। তারা সকলে কৃষি কাজের ওপর নিভরশীল। পুলিশের গ্রেপ্তার আতঙ্কে গ্রামটি পুরুষ শূন্য হওয়ায় নারীদেরকে পান বরজসহ বিভিন্ন কৃষি খেতে কাজ করতে দেখা গেছে। তেঘরমাড়িয়া গ্রামের জসিম উদ্দিন (৬০) নামের এক বৃদ্ধ জানান, দিনের বেলায় কোন মতে বাড়িতে এসে ছাগল নিয়ে বিলে যান। সন্ধার আগেই আবারও গ্রাম ছেড়ে চলে যান। এমন আতঙ্কে রয়েছে গ্রামের প্রতিটি পরিবারের পুরুষ মানুষ। ঘটনার পর থেকে আতঙ্কের কারণে স্কুলে যাওয়া বন্ধ করে দিয়েছে শিক্ষার্থীা। একদিকে গ্রেপ্তার অন্যদিকে দুই গ্রুপের বিবাদমান বিরোধ নিয়ে গ্রামবাসি আতঙ্কের মধ্যে রয়েছেন। ওই গ্রামের একাধিক নারীর সাথে কথা বলে জানা গেছে, বাড়িতে পুরুষ না থাকায় তাদের পান বরজের পান, গরু, ছাগল নিয়ে আতঙ্কে রয়েছে। তাদেরকে সারারাত জেগে পাহাড়া দিতে হচ্ছে। ঘটনার পর কয়েকটি পান বরজের পান চুরির ঘটনা ঘটে। নারীরা সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের কাছে দাবি জানিয়েছেন বিষয়টি সরেজমিনে তদন্ত করে ব্যবস্থা নিতে। তবে মুনসুর রহমান ও বাক্কার আলীসহ তার লোকজন এলাকায় না থাকায় তাদের সাথে কথা বলা সম্ভব হয়নি।
মোহনপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ফাতেমাতুজ্-জোহরা বলেন, বিষয়টি আমার জানা ছিলনা। খোঁজ খবর নিয়ে পুলিশ প্রশাসনের সাথে কথা বলে গুরুত্বের সাথে বিষয়টি দেখা হবে।
মোহনপুর থানার তদন্ত (ওসি) মিজানুর রহমান বলেন, এই ঘটনায় থানায় একটি মামলা রয়েছে। তবে গত শুক্রবারের ঘটনায় উভয় পক্ষ পাল্টাপাল্টি অভিযোগ দায়ের করেছেন। পুলিশ বিষয়টি তদন্ত করছে। তদন্ত করে আইন গত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২১ খোলা নিউজ বিডি ২৪
Themes Customize By Theme Park BD