1. admin@kholanewsbd24.com : admin :
বুধবার, ০৫ অক্টোবর ২০২২, ১০:৩০ অপরাহ্ন
বুধবার, ০৫ অক্টোবর ২০২২, ১০:৩০ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
জনপ্রিয়তার শীর্ষে চেয়ারম্যান প্রার্থী মোঃ হামিদুল ইসলাম। নোয়াখালীতে বিয়ে বাড়ীতে কিশোরীর সর্বনাশ করলো মামাত ভাই পদ্মা আবাসিকের আমজাদকে মহাসড়কে সন্ত্রাসীদের দায়ের কোপে আহত নোয়াখালীর সেনবাগে যুবকের আত্মহত্যা ঠাকুরগাঁওয়ে বালিয়াডাঙ্গীর শাকিল হত্যা মামলার আসামি এক মাস ধরে পলাতক, ইউপি চেয়ারম্যানকে খুঁজছে পুলিশ ! গাজীপুর মহানগরের বিভিন্ন পূজা মন্ডপ পরিদর্শন করলেন কামরুল আহাসান সরকার রাসেল ঠাকুরগাঁওয়ে রাণীশংকৈলে বৈদ্যুতিক স্পর্শে প্রাণ গেল যুবকের! ঠাকুরগাঁওয়ে রাণীশংকৈলে বিএসএফ’র গুলিতে বাংলাদেশী যুবক আহত । ঠাকুরগাঁও থেকে অপহৃত স্কুল ছাত্রী গাজীপুর থেকে উদ্ধার —আসামীরা পলাতক ! বিয়েপাগল ভেন্ডারী আটক ঠাকুরগাঁওয়ে বিয়ের পর যৌতুকের টাকা গ্রহন করে তালাক দেওয়ার যার নেশা !

বঙ্গবন্ধু আর্ন্তজাতিক সন্মেলন কেন্দ্রে,ঢাকা মঃ উঃ ও দক্ষিণের আয়োজনে বঙ্গবন্ধুর ৪৭ তম শাহাদাৎ বার্ষিকী পালন

প্রশাসন
  • সময় : মঙ্গলবার, ৩০ আগস্ট, ২০২২
  • ২৭ বার পঠিত

বঙ্গবন্ধু আর্ন্তজাতিক সন্মেলন কেন্দ্রে,ঢাকা মঃ উঃ ও দক্ষিণের আয়োজনে বঙ্গবন্ধুর ৪৭ তম শাহাদাৎ বার্ষিকী পালন

সাহাজুদ্দিন সরকার স্টাফ রিপোর্টার:

১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে নির্মম হত্যাকাণ্ডের ঘটনা স্মরণে শেখ ফজলে শামস পরশ ও ফজলে নূর তাপসকে পাশে নিয়ে কাঁদলেন এবং নেতাকর্মীদের কাঁদালেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ১৫ আগস্টের রাতে তৎকালীন যুবলীগ চেয়ারম্যান শেখ ফজলুল হক মনি ও আরজু মনির বেঁচে যাওয়া দুই সন্তান হলেন বর্তমানে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের চেয়ারম্যান পরশ ও ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র তাপস। ১৫ আগস্ট বিদেশে থাকার কারণে ভাগ্যক্রমে বেঁচে যাওয়া বঙ্গবন্ধু কন্যা পরশ-তাপসকে পাশে নিয়ে দলের নেতাকর্মীদের সামনে অশ্রুসিক্ত হয়ে পড়েন।

মঙ্গলবার (৩০ আগস্ট) দুপুরে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগ উত্তর-দক্ষিণের আয়োজনে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৭তম শাহাদাতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবসের স্মরণসভায় এই দৃশ্যের অবতারণা হয়।

সভায় মঞ্চে উপবিষ্ট ছিলেন শেখ মনির ছোট ছেলে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র ফজলে নূর তাপস। তিনি স্মরণ সভায় বক্তব্যও রাখেন। আর মঞ্চের সামনে প্রথম সারিতে বসা ছিলেন শেখ ফজলে শামস পরশ। আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য শুরু করেন। তিনি তার বক্তব্যে ১৫ আগস্টের নির্মম হত্যাকাণ্ডের ঘটনা স্মরণ করতে গিয়ে আবেগতাড়িত হয়ে পড়েন। এসময় তিনি বলেন, এখানে তাপস আছে, পরশ আছে। পরশ উঠে আসো। আওয়ামী লীগ সভাপতির একথা শুনে পরশ সামনে থেকে মঞ্চের দিকে উঠে আসতে থাকনে। বড় ভাই পরশ মঞ্চে উঠে আসলে ছোট ভাই তাপস এগিয়ে গিয়ে জড়িয়ে ধরেন। এসময় দুই ভাই একে অপরকে জড়িয়ে ধরে আবেগতাড়িত হয়ে অশ্রুসিক্ত হয়ে পড়েন। পরে বঙ্গবন্ধু কন্যা পরশ তাপস দুই ভাইকে তার ডায়াসের পাশে দাঁড়াতে বলেন। এসময় আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা, পরশ ও তাপসসহ স্মরণ সভায় উপস্থিত নেতাকর্মীদের অনেকে আবেগতাড়িত হয়ে পড়েন এবং এক আবেগঘন পরিবেশের সৃষ্টি হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২১ খোলা নিউজ বিডি ২৪
Themes Customize By Theme Park BD