1. admin@kholanewsbd24.com : admin :
সোমবার, ২৩ মে ২০২২, ০২:৫৮ অপরাহ্ন
সোমবার, ২৩ মে ২০২২, ০২:৫৮ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
রাজশাহীতে চারদিন ধরে খোলা আকাশের নিচে গৃহহারা ৩০ টি পরিবার টঙ্গীতে রিকশা চালকের কামড়ে পুলিশসহ আহত ৪ ঠাকুরগাঁওয়ে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে ধর্ষক সহ আটক – ২ ঠাকুরগাঁওয়ে জরিমানা করতে চাওয়ায় সার্জেন্টের পজ মেশিন ভাঙলেন মোটরসাইকেল আরোহী! পদ্ম ফুল ছেড়ে ঘাস ফুলে প্রবেশ ব্যারাকপুরের বিজেপি র লোকসভার সদস্য অর্জুন সিঙের।। ঠাকুরগাঁওয়ে বালিয়াডাঙ্গীতে কলেজ ছাত্রীকে ইভটিজিংয়ের দায়ে — ২ যুবক আটক ! টঙ্গীতে যুবলীগের প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত নোয়াখালীতে দূদকের মামলায় ব্যাংক কর্মকর্তার ৩০বছর কারাদন্ড নেশার টাকা জোগাড়ে ছিনতাই করতেন বুলবুল জবি’র আধুনিক ভাষা ইনস্টিটিউটে চালু হচ্ছে স্প্যানিশ ল্যাঙ্গুয়েজ কোর্স

বিএনপি নেতার হামলার প্রতিবাদে ছাত্রলীগ নেতার সংবাদ সম্মেলন

প্রশাসন
  • সময় : বৃহস্পতিবার, ৫ মে, ২০২২
  • ২০ বার পঠিত

এসএম রুবেল চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি

চাঁপাইনবাবগঞ্জে ইউনিয়ন পরিষদের ভোটকে কেন্দ্র করে বারবার হামলার প্রতিবাদ জানিয়ে এবং সুষ্ঠ তদন্ত দাবি করে সংবাদ করেছেন এক ছাত্রলীগ নেতা। বৃহস্পতিবার (০৫ মে) বিকেলে এই সংবাদ সম্মেলন করেন, চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. রাজু। নৌকার পক্ষে ভোট করায় সদর উপজেলা বিএনপির সাবেক সাংগাঠনিক সম্পাদক ও রানিহাটি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. রহমত আলী ও তার সর্মথকদের হামলার শিকার হয়েছেন বলে দাবি করেন ওই ছাত্রলীগ নেতা ও তার পরিবার।

সদর উপজেলার রানিহাটি ইউনিয়নের চকআলমপুর ফিরাঙ্গিপাড়ায় নিজ বাসভবনে এই সংবাদ সম্মেলন করেন ছাত্রলীগ নেতা মো. রাজু। সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, গত রানিহাটি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আমি ও আমার পরিবার আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের প্রার্থী মো. জাকারিয়ার পক্ষে ভোট করেছি। এই বিষয়টি নিয়েই বিরোধ দেখা দেয় বিএনপির প্রার্থী রহমত আলী ও তার সর্মথকদের। ভোট কেন্দ্র থেকে এজেন্টকে বের করে দেয়ার কারনো ভোট শুরুর তিন ঘন্টা পর ভোট বর্জন করেন নৌকার প্রার্থী জাকারিয়া।

তিনি আরও বলেন, ভোটে পাশ করার ৬ দিন পরই কৃষ্ণগোবিন্দপুর উচ্চ বিদ্যালয়ে আমার ছোট ভাই রানিহাটি ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি মো. জনি ও তার বন্ধু মেহেদীর উপর হামলা করে চেয়ারম্যান রহমতের লোকজন। এসময় তাদেরকে ব্যাপক মারধর করে তারা। এমনকি জনির কাছ থেকে নগদ ১০ হাজার টাকা ও দুটি মোবাইল ছিনতাই করে রহমত চেয়ারম্যানের লোকজন। এনিয়ে থানায় অভিযোগ করেও তাদের বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা নেয়নি পুলিশ।

সংবাদ সম্মেলনে সদর উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. রাজু বলেন, ভাইয়ের উপর হামলার পর আমার মা চেয়ারম্যানের কাছে বারবার ঘুরলেও তিনি কোন সমাধান করে দেয়নি। উল্টো গত রবিবার (০১ মে) বেলা ৩টার দিকে রহমত চেয়ারম্যানের নিজের গাড়ি নিয়ে ১৩-১৫ জন সন্ত্রাসী আমার বাড়িতে হামলা করে। এসময় বাড়ি থেকে তারা স্বর্ণের একটি মালা, নগদ ৩ লাখ টাকা ও ৩টি মোবাইল লুটপাট করে। এতে আমি ও আমার ভাই বাধা দিতে গেলে আমাদের উপর হামলা করে। দুই হাতের কব্জিতে চাইনিজ কুড়াল দিয়ে আঘাত করে তারা।

তিনি আরও বলেন, এ ঘটনা দেখে স্থানীয় জনসাধারণ এগিয়ে আসলে কয়েক ককটেল বিস্ফোরণ করে চেয়ারম্যানের মোটরসাইকেলফেলে তারা পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয়রা আমাদেরকে উদ্ধার করে ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা হাসপাতালে ভর্তি করে। চিকিৎসা শেষে থানায় অভিযোগ করতে গেলে তা গ্রহণ করেনি পুলিশ। উল্টো আমাদের নামেই মামলা হয়েছে। ঘটনার পর চেয়ারম্যানের লোকজন আমাদেরকে প্রাণনাশের হুমকি দিচ্ছে। আমরা এবিষয়ে সঠিক তদন্ত ও বিচার চাই। হামলায় রামচন্দ্রপুরহাট কলেজপাড়ার হাসিব, ওদুদ, শাহিন, বাইরুল, হাসনাইন, নাদিম, তোহরুল, ম্যালকারপাড়া সজিব, রামচন্দ্রপুরহাটের শরিফ, সাগর, ইমান, রনি, বাক্কার অংশগ্রহণ করে এবং তারা সকলেই চেয়ারম্যানের লোক বলে অভিযোগ করেন তিনি।

এবিষয়ে সকল অভিযোগ অস্বীকার করেন রানিহাটি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও বিএনপি নেতা রহমত আলী। মুঠোফোনে তিনি বলেন, এসব ব্যাপারে আমার কিছু জানা নাই। এখন বাইরে আছি, এসব নিয়ে পরে কথা বলব।

সদর মডেল থানার অফিসার-ইন-চার্জ (ওসি) মোজাফফর হোসেন জানান, এঘটনায় পুলিশ বাদি হয়ে একটি বিস্ফোরক মামলা দায়ের করেছে। একজন আসামীও গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তদন্তকাজ চলমান রয়েছে, তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। পুলিশ মামলা করেছে, তাই আর কারো মামলা নেয়া হয়নি।

উল্লেখ্য, গত ৫ জানুয়ারীতে অনুষ্ঠেয় রানিহাটি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ভোট কেন্দ্র থেকে এজেন্টকে বের করে দেয়ার অভিযোগ এনে ভোট শুরুর তিন ঘন্টা পর বেলা ১১টায় ভোট বর্জন করেন আওয়ামীলীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী মোহা. জাকারিয়া। এসময় স্থানীয় বিএনপি ও জামায়াত প্রার্থীর বিরুদ্ধে তিনি নৌকা প্রতীকের এজেন্টদের জোর বের করে দেয়ার অভিযোগ করেন। সেসময় তিনি আরও অভিযোগ করেন, ভোট শুরুর পর থেকে আমার বাড়ি ঘিরে রাখা হয়েছে। দুপুর ১২টা পর্যন্ত বাড়ি থেকে কোথাও বের হতে পারিনি। ০১ ও ০৯ নং ওয়ার্ড ছাড়া বাকি সবগুলো ওয়ার্ডে আমার নৌকা প্রতীকের এজেন্টদের জোরপূর্বক বের করে দেয়া হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২১ খোলা নিউজ বিডি ২৪
Themes Customize By Theme Park BD