1. admin@kholanewsbd24.com : admin :
শুক্রবার, ২০ মে ২০২২, ১২:০৫ পূর্বাহ্ন
শুক্রবার, ২০ মে ২০২২, ১২:০৫ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
পাক্কা ৪০ কেজিতে আমের মণ নির্ধারণ হবে। উচ্চ আদালতে বিচারাধীন স্বত্বেও নিম্ন আদালতের রায়ে ১০টি হিন্দু পরিবার ও ১৮টি মুসলিম পরিবারকে উচ্ছেদ! জবি মার্কেটিং ক্লাবের সভাপতি রায়হান, সম্পাদক সাইদ রামুর চেইন্দা এলাকায় ১৪৭৫ পিস ইয়াবা সহ তিনজনকে গ্রেফতার। টাঙ্গাইলের সখীপুরে প্রতিপক্ষের হামলায় বেরিয়ে গেছে পেটের ভুঁড়ি আবদুল গাফফার চৌধুরীর মৃত্যুতে বিএমএসএস নেতৃবৃন্দের শোক প্রকাশ। পদ্মা সেতু নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য সরাসরি বেগম জিয়াকে হত্যার হুমকির সামিল– মির্জা ফখরুল ১৯ বছর পর গাজীপুর জেলা আওয়ামী লীগের ত্রি- বার্ষিক সম্মেলন সখীপুরে চেয়ারম্যান প্রার্থী রনি’র নিজ অর্থায়নে রাস্তা সংস্কার আবদুল গাফফার চৌধুরীর মৃত্যুতে হযরত শাহজালাল রহঃ প্রেসক্লাব নেতৃবৃন্দের শোক প্রকাশ।

নিউমার্কেটে সংঘর্ষ : ঢাকা কলেজের পাঁচ শিক্ষার্থী আটক

প্রশাসন
  • সময় : বৃহস্পতিবার, ২৮ এপ্রিল, ২০২২
  • ২১ বার পঠিত

খোলা নিউজ বিডি ডেস্ক : রাজধানীর নিউমার্কেটে ব্যবসায়ী ও দোকানকর্মীদের সঙ্গে ঢাকা কলেজ শিক্ষার্থীদের সংঘর্ষের সময় হত্যাকাণ্ডে জড়িত সন্দেহে পাঁচজনকে গ্রেফতার করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) গোয়েন্দা শাখা (ডিবি)। ডিএমপির মিডিয়া সেন্টারে বৃহস্পতিবার (২৮ এপ্রিল) দুপুরে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান ডিবির অতিরিক্ত কমিশনার এ কে এম হাফিজ আক্তার।
তিনি বলেন, সহিংসতার ঘটনায় দুটি হত্যা মামলার তদন্ত করছিলাম। এ হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট পাঁচজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। সবাই ঢাকা কলেজের ছাত্র। তারা প্রত্যক্ষভাবে হামলায় অংশ নেয় এবং সশস্ত্রভাবে হামলার অগ্রভাবে অংশ নেয়।
গ্রেফতাররা হলেন-হিসাববিজ্ঞান বিভাগের আব্দুল কাইয়ূম, সমাজবিজ্ঞান বিভাগের পলাশ ও ইরফান, বাংলা বিভাগের ফয়সাল, ইসলামের ইতিহাস বিভাগের জুনায়েদ।
উল্লেখ্য, গত ১৮ এপ্রিল (সোমবার) রাত ১২টায় নিউমার্কেট ও ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীরা সংঘর্ষে জড়ান। পরদিন ১৯ এপ্রিল (মঙ্গলবার) দিনভর সংঘর্ষ চলে। ওই ঘটনায় এখন পর্যন্ত দুজনের মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় দুটি হত্যা মামলাসহ পাঁচটি মামলা করা হয়। এর মধ্যে পুলিশের দুই মামলায় ২৪ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাতপরিচয় এক হাজার ২০০ জনকে আসামি করা হয়। এজাহারে নাম উল্লেখ করা ২৪ আসামির সবাই নিউ মার্কেট থানা বিএনপি ও এর অঙ্গসংগঠনের নেতা। এর মধ্যে প্রধান আসামি করা হয় মকবুল হোসেনকে। এর বাইরে নিহত নাহিদ ও মোরসালিনের পরিবার পৃথক দুটি মামলা করেছে। এছাড়া অ্যাম্বুলেন্স ভাঙচুরের ঘটনায় একটি মামলা করেছে এর মালিক মো. সুজন।

মকবুল হোসেনকে এই মামলায় আসামি করা প্রসঙ্গে পুলিশের নিউমার্কেট অঞ্চলের অতিরিক্ত উপকমিশনার শাহেনশাহ মাহমুদ বলেন, গোয়েন্দা তথ্য ও সাক্ষ্যপ্রমাণের ভিত্তিতে এজাহারে আসামিদের নাম উল্লেখ করা হয়েছে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ওয়েলকাম ও ক্যাপিটাল নামে যে দুটি ফাস্ট ফুড দোকানের কর্মচারীর মধ্যে বিরোধের জেরে সংঘর্ষের সূত্রপাত, সেই দোকান দুটি ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন থেকে বরাদ্দ নিয়েছিলেন মকবুল হোসেন। পরে দোকান দুটি তিনি ভাড়া দেন।
মামলা হওয়ার পর এক প্রতিক্রিয়া বৃহস্পতিবার (২১ এপ্রিল) মকবুল হোসেন বলেন, গত চার মাস আমি ওই এলাকাতেই যাইনি। ইটপাটকেল নিক্ষেপ, জখম, ভাঙচুরের প্রশ্নই আসে না। নব্বইয়ের দশকে আমি সিটি করপোরেশন থেকে দোকান দুটি ভাড়া নিই।
এই মামলায় নাম উল্লেখ করা অন্য আসামিরা হলেন- আমির হোসেন আলমগীর, মিজান, টিপু, হাজি জাহাঙ্গীর হোসেন পাটোয়ারী, হাসান জাহাঙ্গীর মিঠু, হারুন হাওলাদার, শাহ আলম শন্টু, শহিদুল ইসলাম শহিদ, মিজান ব্যাপারী, আসিফ, রহমত, সুমন, জসিম, বিল্লাল, হারুন, হেহা, মনির, বাচ্চু, জুলহাস, মিঠু, মিন্টু ও বাবুল।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২১ খোলা নিউজ বিডি ২৪
Themes Customize By Theme Park BD