1. admin@kholanewsbd24.com : admin :
বুধবার, ২৬ জানুয়ারী ২০২২, ০২:২৫ অপরাহ্ন
বুধবার, ২৬ জানুয়ারী ২০২২, ০২:২৫ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
১নং উথুরা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ৪নং ওয়ার্ডে মেম্বার পদে প্রচার -প্রচারনায় ব্যস্ত মো.আমিনুল ইসলাম বাবুল। ১নং উথুরা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ৮নং ওয়ার্ডে মেম্বার পদে প্রচার -প্রচারনায় ব্যস্ত আবু জুরাইজ সরকার ১নং উথুরা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ৪নং ওয়ার্ডে মেম্বার পদে প্রচার -প্রচারনায় ব্যস্ত মো.লাল মিয়া। রংপুর স্টেশনে ভাসমান মানুষের মাঝে কম্বল বিতরণ করলো মানবাধিকার সংস্থা আসক ফাউন্ডেশন, দক্ষ পুলিশ সমৃদ্ধ দেশ বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশ এই শ্লোগান নিয়ে এগিয়ে যাবে বাংলাদেশ হাইওয়ে পুলিশ, অফিসার ইনচার্জ সিরাজুল ইসলাম দোহাজারী হাইওয়ে। ১নং উথুরা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ৪নং ওয়ার্ডে মেম্বার পদে প্রচার -প্রচারনায় ব্যস্ত মো.লাল মিয়া। লোহাগাড়া থানা পুলিশের বিশেষ অভিযানে ২১০০(দুই হাজার একশত) পিস ইয়াবা ট্যাবলেটসহ গ্রেফতার ০১ জন। বিএমএসএফ’র সভায় সন্ত্রাসী হামলা,কেন্দ্রীয় কমিটি বিলুপ্ত :জাতীয় পরিষদ গঠন যশোরে দুর্বৃত্তের ছুরিকাঘাতে দুই শিক্ষার্থী গুরুতর জখম বোরহানউদ্দিনে বৃদ্ধের উপর অতর্কিত হামলার অভিযোগ,

তানোরে ২দিন ব্যাপী ৪৩তম জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সপ্তাহ-বিজ্ঞান মেলা ২০২১ইং অনুষ্ঠিত!

প্রশাসন
  • সময় : বুধবার, ২৯ ডিসেম্বর, ২০২১
  • ৫২ বার পঠিত

স্টাফ রিপোর্টার; এস. আর. টুটুল এম. এল!

আজ ২৯ ডিসেম্বর (বুধবার) বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের পৃষ্ঠপোষকতায়, জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি জাদুঘর এর তত্ত্বাবধানে, তানোর উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে, উপজেলা পরিষদ অডিটোরিয়াম কাম কমিউনিটি সেন্টারে ৪৩তম জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সপ্তাহ-২০২১ইং উপলক্ষে বিজ্ঞান মেলা ২০২১ইং অনুষ্ঠিত হয়েছে।

অনুষ্টানে তানোর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) পঙ্কজ চন্দ্র দেবনাথ এর সভাপতিত্বে, প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, সাংসদ প্রতিনিধি ও তানোর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান লুৎফর হায়দার রশিদ ময়না।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন; সহকারী কমিশনার (ভুমি) সুস্মিতা রায়, তানোর থানার অফিসার ইন্চার্জ (ওসি) রাকিবুল হাসান রাকিব, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সোনিয়া সরদার ও ভাইস-চেয়ারম্যান আবুবাক্কার সিদ্দিকি, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা (পিআইও) প্রকৌশলী তারিকুল ইসলাম, এলজিইডি প্রকৌশলী সাইদুর রহমান, কৃষি কর্মকর্তা শামিমুল ইসলাম, মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা সিদ্দিকুর রহমান, বিএমডিএর সহকারী প্রকৌশলী মাহফুজুর রহমান ও ৬টি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানগণ এবং সাংবাদিসহ উপজেলা পরিষদের বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

জানা গেছে, উক্ত ৪৩তম জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সপ্তাহ এবং বিজ্ঞান মেলা ২০২১ইং অনুষ্ঠানে (২৫)টি স্টাল অংশগ্রহণ করেছে।

প্রধান অতিথি লুৎফর হায়দার রশিদ ময়না চেয়ারম্যান বলেন; দেশ ও জাতির ভাগ্য উন্নয়ন অগ্রযাত্রায় আওয়ামী লীগ সরকার যখন দেশটাকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে, তখন আমাদের চিন্তা-চেতনাটাও বঙ্গবন্ধু কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকার এর পক্ষে হতে হবে।
প্রতিনিয়ত বিজ্ঞানের নতুন আবিষ্কার, যুগের পরিবর্তনের কারণ খুঁজতে এবং জ্ঞানের পরিধি বাড়াতে ক্রমেই দর্শনার্থীর সংখ্যা বাড়ছে। দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে প্রতিদিন জাদুঘরে হাজার হাজার দর্শনার্থী। গত বছর দর্শনার্থী ছিলো ৫০ হাজারের ওপর। চলতি বছর নভেম্বর পর্যন্ত এ সংখ্যা ২ লক্ষ ৫০ হাজারেরও বেশি।

প্রদর্শন উপযোগী প্রাকৃতিক সামগ্রী এবং স্থানীয় সৃষ্টিশীল বিজ্ঞানীদের অনুপ্রেরণা ও উদ্ভাবনমূলক কাজ সম্পাদনের জন্য জাদুঘর প্রতিষ্ঠা করা হয়। এখন দেশের বৈজ্ঞানিক ও প্রযুক্তিগত অগ্রগতির নির্দশন সামগ্রী প্রদর্শন, বিজ্ঞানের অগ্রযাত্রার নির্দশন ও বিজ্ঞানমনস্ক শিক্ষিত মানব সমাজ গড়ে তুলতে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে সরকার।

ফলে এর বিস্তৃতি এখন শহর, নগর কিংবা গ্রাম সর্বত্রই ছড়িয়ে পড়ছে। এটি রাজধানীসহ দেশের বিভাগীয়, জেলা এবং উপজেলা পর্যায়ে সব শ্রেণিপেশার মানুষের জন্য বিজ্ঞান মেলা, বিজ্ঞান প্রতিযোগিতা এবং বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সামগ্রী প্রদর্শনের আয়োজন করা হচ্ছে। সেইসঙ্গে মিউজু বাসের মাধ্যমে ভ্রাম্যমাণ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি প্রদর্শন সামগ্রী দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলের মানুষের মাঝে পৌঁছে দিচ্ছে। যে কারণে তরুণদের আগ্রহ ক্রমেই বেড়ে চলেছে।

তিনি আরও বলেন; ১৯৬৫ সালের ২৬ এপ্রিল পাকিস্তান সরকারের শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের প্রস্তাবনায় ১৯৬৬ সালে ঢাকা পাবলিক লাইব্রেরি ভবনে যৌথভাবে কাজ শুরু করে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি জাদুঘর। এরপর জ্ঞান অন্বেষণকারীদের অজানাকে জানার চাহিদা ক্রমেই বাড়তে থাকে। সেইসঙ্গে নতুন নতুন প্রদর্শন সামগ্রী সংগ্রহ হওয়ায় একটি নিজস্ব ভবনের প্রয়োজনীয়তা দেখা দেয়।

১৯৭০ সালের এপ্রিল মাসে চামেলীবাগে স্থানান্তরের পর পর্যাপ্ত স্থান সংকুলান না হওয়ায় ১৯৭১ সালের মে মাসে এটিকে ধানমন্ডির ১ নম্বর সড়কে স্থানান্তর করা হয়। সেখান থেকে ১৯৭৯ সালে ধানমন্ডির ৬ নম্বর সড়কে এবং ১৯৮০ সালে কাকরাইল মসজিদের সামনে স্থানান্তর করা হয়। প্রতিবছর জাদুঘরটি এক স্থান থেকে অন্য স্থানে যেন স্থানান্তরিত করতে না হয় সেজন্য ১৯৮১ সালে সরকার জাদুঘরের নিজস্ব ভবন নির্মাণের জন্য আগারগাঁওয়ের শেরেবাংলা নগর এলাকায় ৫ একর জমির ওপর একটি ভবন নির্মাণ করে। জাদুঘরটি ১৯৭২ সালে’ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি জাদুঘর’ হিসেবে ঘোষণা দেন।

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের সচিবের তত্ত্বাবধানে এবং বিজ্ঞান, প্রযুক্তি, শিক্ষা ও জাদুঘর সংশ্লিষ্ট বিশিষ্ট ব্যক্তিদের সমন্বয়ে এটি পরিচালিত হচ্ছে। জাদুঘরটিতে মোট ৭টি গ্যালারি, প্রবেশ ও বাহির হওয়ার জন্য দুটি আলাদা পথ এবং ঘুরে দেখানোর জন্য গাইডলাইন রয়েছে। শনি ও রোববার আকাশ মেঘমুক্ত থাকলে সন্ধ্যার পরে টেলিস্কোপের সাহায্যে আকাশ পর্যবেক্ষণ করতে পারে দর্শনার্থীরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২১ খোলা নিউজ বিডি ২৪
Themes Customize By Theme Park BD