1. admin@kholanewsbd24.com : admin :
বুধবার, ২৬ জানুয়ারী ২০২২, ০৩:০৮ অপরাহ্ন
বুধবার, ২৬ জানুয়ারী ২০২২, ০৩:০৮ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
জেলা ও বিভাগীয় পর্যায়ে আদালত না থাকায় ৫’শ কিঃ মিঃ দুরে পল্লী বিদ্যুৎ মামলায় হাজিরা দিতে হচ্ছে গ্রাহকদের –ঢাকায় । শরীয়তপুরে সড়ক নির্মাণে অনিয়মের অভিযোগ! জয়পুর শ্রী তারক ধামে সন্ত্রাসী হামলায় মতুয়ারা আহত বিচারের দাবী!! ১নং উথুরা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ৪নং ওয়ার্ডে মেম্বার পদে প্রচার -প্রচারনায় ব্যস্ত মো.আমিনুল ইসলাম বাবুল। ১নং উথুরা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ৮নং ওয়ার্ডে মেম্বার পদে প্রচার -প্রচারনায় ব্যস্ত আবু জুরাইজ সরকার ১নং উথুরা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ৪নং ওয়ার্ডে মেম্বার পদে প্রচার -প্রচারনায় ব্যস্ত মো.লাল মিয়া। রংপুর স্টেশনে ভাসমান মানুষের মাঝে কম্বল বিতরণ করলো মানবাধিকার সংস্থা আসক ফাউন্ডেশন, দক্ষ পুলিশ সমৃদ্ধ দেশ বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশ এই শ্লোগান নিয়ে এগিয়ে যাবে বাংলাদেশ হাইওয়ে পুলিশ, অফিসার ইনচার্জ সিরাজুল ইসলাম দোহাজারী হাইওয়ে। ১নং উথুরা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ৪নং ওয়ার্ডে মেম্বার পদে প্রচার -প্রচারনায় ব্যস্ত মো.লাল মিয়া। লোহাগাড়া থানা পুলিশের বিশেষ অভিযানে ২১০০(দুই হাজার একশত) পিস ইয়াবা ট্যাবলেটসহ গ্রেফতার ০১ জন।

আলফাডাঙ্গায় চাল আত্মসাৎকারী চেয়ারম্যান পেলেন মাত্র ১৭২ ভোট

প্রশাসন
  • সময় : মঙ্গলবার, ২৮ ডিসেম্বর, ২০২১
  • ২৭ বার পঠিত

 খন্দকার  আব্দুল্লাহ ঃফরিদপুরের আলফাডাঙ্গায় তিনবারের নির্বাচিত ইউপি চেয়ারম্যান তিনি। কিন্তু চাল আত্মসাতের অভিযোগে চেয়ারম্যান পদ থেকে বরখাস্ত হওয়ার পর ভোটে দাঁড়িয়ে জামানত হারিয়েছেন। তিনি পেয়েছেন মাত্র ১৭২ ভোট।

রোববার (২৬ ডিসেম্বর) উপজেলার বানা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে হাদী হুমায়ুন কবীর বাবু আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে অংশ নিয়ে অটোরিকশা প্রতীকে মাত্র ১৭২ ভোট পেয়েছেন।খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, উপজেলার বানা ইউনিয়ন পরিষদের তিনবারের নির্বাচিত চেয়ারম্যান হাদী হুমায়ুন কবীর বাবু সর্বশেষ আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীক নিয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচন হন। ২০২০ সালের ১৬ জুন ঘূর্ণিঝড় আম্পানে ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য বরাদ্দকৃত চাল আত্মসাৎকালে হাতেনাতে আটক হন তিনি। ২০১৯-২০২০ চক্রের দুঃস্থ মহিলা উন্নয়ন (ভিজিডি) কর্মসূচির প্রায় ৭.৫৩ মেট্রিক টন (৭৫৩০ কেজি) চাল আত্মসাতের অভিযোগে একইসঙ্গে আটক হন ইউপি সচিব মুস্তাফিজুর রহমান।

পরে তাদের দুজনকে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে দুই লাখ টাকা জরিমানা করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা। এরপর ৭ জুলাই চাল বিতরণে অনিয়ম ও আত্মসাতের অভিযোগে স্থানীয় সরকার বিভাগ চেয়ারম্যান হাদী হুমায়ুন কবীর বাবুকে সাময়িক বরখাস্ত করেন। পরে তিনি আর দায়িত্ব ফিরে পাননি।চতুর্থ ধাপে ইউপি নির্বাচনে তফসিল ঘোষণার পর মনোনয়ন দাখিল করেন হাদী হুমায়ুন কবীর বাবু ও তার ছেলে হাদী ইমতিয়াজ কবীর শামীম। ৬ ডিসেম্বর মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ দিনে হাদী ইমতিয়াজ কবীর শামীম মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করলেও বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে ভোটে অংশ নেন তিনি। কিন্তু গরিবের চাল আত্মসাৎ ও নানা অনিয়মের কারণে চেয়ারম্যানের পদ থেকে বরখাস্ত হওয়ার পর তার জনপ্রিয়তা শূন্য স্থানে নেমে আসে। আর এ কারণেই এবারের নির্বাচনে মাত্র ১৭২ ভোট পেয়ে জামানত হারিয়েছেন এক সময়কার জনপ্রিয় এই জনপ্রতিনিধি।

তিনবারের নির্বাচিত চেয়ারম্যান হয়েও জামানত বাজেয়াপ্ত হওয়ার বিষয়ে হাদী হুমায়ুন কবীর বাবু বলেন, আমি নির্বাচনে অংশ নিতে চাইনি। কিন্তু এলাকায় অবস্থান ও সমর্থকদের ধরে রাখতে, তাদের খুশি রাখতে নির্বাচনে অংশ নেওয়া। তাছাড়া এখন বয়স হয়েছে। আগের মতো দৌড়ঝাঁপ করতে পারি না। যার কারণে নির্বাচনে ভালোমতো প্রচার প্রচারণা চালানো সম্ভব হয়নি। মানুষের কাছে পৌঁছাতে পারিনি, এ কারণে ফলাফল এমন হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২১ খোলা নিউজ বিডি ২৪
Themes Customize By Theme Park BD