1. admin@kholanewsbd24.com : admin :
মণিরামপুরে শীতকালীন সবজির সমারোহ : ভাল দাম পাচ্ছে চাষিরা - খোলা নিউজ বিডি ২৪    
বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১২:৪৭ অপরাহ্ন
বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১২:৪৭ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
মসিকের উদ্যোগে জাতীয় স্থানীয় সরকার দিবস উদযাপিত সড়ক দুর্ঘটনা প্রতিরোধে সচেতনতামূলক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত ধামইরহাটে যুবলীগের সদস্য সংগ্রহ ও নবায়ন কার্যক্রমের উদ্বোধন জামালপুরে দুর্যোগ প্রস্তুতি বিষয়ক আলোচনা সভা পটুয়াখালীতে আংশিক কমিটি দিয়েই চলছে জেলা যুবলীগ গৌরীপুরে দু’ভবনের প্রধানমন্ত্রীর উদ্বোধন ফলক পড়ে আছে হোটেলের ফ্লোরে বিপিএম পদক পেলেন জয়পুরহাটের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ নূরে আলম শেরপুর জেলায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের মাদকবিরোধী অভিযান পরিচালিত হয় নড়াইলের লোহাগড়ায় ৪ বছরের শিশুকে গলা টিপে হত্যার অভিযোগে সৎ মা পুলিশ হেফাজতে পাঁচবিবিতে মহিলা আওয়ামীলীগের ৫৫তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত

মণিরামপুরে শীতকালীন সবজির সমারোহ : ভাল দাম পাচ্ছে চাষিরা

প্রশাসন
  • সময় : বুধবার, ১৫ ডিসেম্বর, ২০২১
  • ১১৭ বার পঠিত

যশোর জেলা প্রতিনিধি (আশরাফুল ইসলাম বাবু)

যশোরের মনিরামপুর উপজেলা নেংগুড়াহাট অঞ্চলে মাঠজুড়ে এখন সবুজের সমারোহ। শীতকালীন সবজিতে ঠাসা প্রত্যেকটি মাঠ। চলতি মৌসুমে নেংগুড়াহাট এলাকায় শীতকালীন সবজির এবার বাম্পার ফলন ভাল হয়েছে।

উৎপাদন ও দাম ভাল থাকায় খুশি কৃষকরা। বর্তমানে যে দামে সবজি বিক্রি করতে হচ্ছে, তাতে উৎপাদন খরচ উঠে কিছু লাভ থাকবে বলে জানিয়েছেন কৃষকরা।

ব্যবসায়ী বলছেন, স্থানীয় উৎপাদন ছাড়াও জেলার বাইরে থেকে সরবরাহ বেড়ে যাওয়ায় বাজারে সবজির দাম ক্রয় ক্ষমতার ভিতরে আছে। চালুয়াহাটি ইউনিয়ান কৃষী উপসহকারী মারুফুল হক, হাবিবুর রহমান বলেন চলতি মৌসুমে নেংগুড়াহাট এলাকায় কৃষাকের কৃষি জমিতে শীতকালীন সবজির আবাদ লক্ষ্য নির্ধারণ করা হয়।

এরমধ্যে গত বছর ৮০০শত হেক্টর জমিতে শীতকালীন সবজি আবাদ হয়েছিল। সে হিসাবে এবার প্রায় এক হাজার হেক্টরের বেশি জমিতে সবজি আবাদ হয়েছে। তাছাড়া নেংগুড়াহাট এলাকায় ফুলকপি, ওলকপি, বাঁধাকপি, পালংশাক, শিম, বরবটি, টমেটোর, পটল, কলা, বেগুনসহ সকল সজবী। সবচেয়ে বেশি উৎপাদন হয়েছে, এ এলাকায় আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় এই বছর ফলন ও ভালো হয়েছে। ইউনিয়ান উপ-সহকারী মারুফুল হক ও হাবিবুর রহমান বলেন এ বছর বারো মাসই নানা ধরনের সবজি উৎপাদন হয়েছে। গত মৌসুমের চেয়ে এবার নেংগুড়াহাট এলাকায় শীতকালীন সবজির আবাদ বেড়েছে। আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় ও রোগবালাই দেখা না দেওয়া ফলন ভালো হয়েছে।

মনিরামপুর উপজেলার চালুয়াহাটি ইউনিয়ান হায়াতপুর শাহাপুর গ্রামের পাতা কপি চাষী হেরমতের ও মাছুদ বলেন পাতাকপি কেজিপ্রতি ২৫ থেকে ৩০ টাকা দরে বিক্রয় করছে। জমি থেকে এ পর্যন্ত দুই দফা তিন দফ ফুলকপি পাতাকপি উত্তোলন করে বাজারে বিক্রি করেছি। গত বছরের এ সময়ে প্রতি কেজি ফুলকপি পাইকারিভাবে ২০থেকে ২২ টাকা দরে বিক্রি করেছিলেন। এবার তা বিক্রি করতে হচ্ছে ৩৫ থেকে ৪৫ টাকায়। একই অবস্থা বাঁধাকপির দামেও। বর্তমানে প্রতি কেজি বাঁধাকপি ২৫-থেকে-৩০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে।

Please Share This Post in Your Social Media

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা