1. admin@kholanewsbd24.com : admin :
ফিশিং বোটে সিলিন্ডার বিস্ফোরণ ১৪ জন অগ্নি দগ্ধ। - খোলা নিউজ বিডি ২৪
শনিবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২৩, ০১:২৭ পূর্বাহ্ন
শনিবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২৩, ০১:২৭ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
কবিরহাটে ২ স্বর্ণ দোকানে ডাকাতি, নৈশ প্রহরীকে হত্যাঃ ৩ কোটি টাকার স্বর্ণ লুট ঠাকুরগাঁওয়ে শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় জালিয়াতির অভিযোগে ৭ জন আটক পাঁচবিবিতে বালু উত্তোলনের ঘাট থেকে একটি লাশ উদ্ধার কাউনিয়ায় জাতীয় দৈনিক সকালের সময় পত্রিকার সাংবাদিক লাঞ্ছিত ‘ভুয়া’ সন্দেহে সাদাপোশাকের পুলিশের ওপর স্থানীয়দের হামলা, আহত ৬ নাটোরে ৮ কেজি ভারতীয় গাঁজাসহ আটক-১ নাটোরে নারীর ক্ষমতায়ন বিষয়ে উঠান বৈঠক গাজীপুরে স্ত্রীকে মাটিচাপার ১১ দিন পর স্বামীর আত্মসমর্পণ এমপি প্রার্থীদের নিকট ১৪ দফা দাবির লিফলেট প্রদান করবে সাংবাদিকরা গাজীপুরে টেন্ডার ছাড়াই,প্রাথমিক বিদ্যাঃ আঙ্গীনার গাছ কাটার অভিযোগ

ফিশিং বোটে সিলিন্ডার বিস্ফোরণ ১৪ জন অগ্নি দগ্ধ।

প্রশাসন
  • সময় : মঙ্গলবার, ২ নভেম্বর, ২০২১
  • ১৩৮ বার পঠিত

সিনিয়র রিপোর্টার এম. সোহাইল চৌধুরী।
কক্সবাজারের কুতুবদিয়া উপকূলে ফিশিং ট্রলারে গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে দগ্ধ হয়ে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে আট জেলে। এ ঘটনায় অন্তত আরও ছয় জেলে আহত হয়েছেন । গুরুতর আহতদের প্রথমে কুতুবদিয়া হাসপাতালে এবং তিন ঘন্টা পর চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পরে সেখান থেকে ৬ জনকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ণ ইউনিটে ভর্তি করা হয়েছে বলে নিশ্চিত করেন কুতুবদিয়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাঃ রেজাউল হাসান।

গুরুতর আহতরা হলেন, সাইফুল ইসলাম (২৪), ফরিদুল আলম (৪৩), নৌকার মাঝি মামুন (২৪), জিসাদ (২৪), মিনহাজ (১৭),সাদ্দাম (২০), নুরুল হোছাইন (৩৫), দিলশাদ (১৭)। বাকিদের প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ছেড়ে দেয়া হয়।

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মেডিকেল অফিসার ডাঃ জয়নুল আবেদীন জানান, দগ্ধদের মধ্যে সাইফুলের শরীরের ৮১ শতাংশ, ফরিদের ৬৪ শতাংশ, নুরুল হোসাইনের ৫৫ শতাংশ, মিনহাজের ৪৮ শতাংশ, দিলশাদের ৪৭ শতাংশ, জিশাদের ৪৭ শতাংশ, মামুনের ১৪ শতাংশ ও সাদ্দামের শরীরের ১১ ঝলসে গেছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, শনিবার রাত দশটার দিকে উপজেলার দক্ষিণ ধুরুং ইউনিয়নস্থ অলি পাড়ার আনছার মিস্ত্রির মালিকানাধীন এফ,বি মায়ের দোয়া ট্রলারে এ দূর্ঘটনা ঘটে। নৌকাটি বঙ্গোপসাগর থেকে মাছ ধরে তীরে ফিরছিল। ইঞ্জিন থেকে সৃষ্ট আগুনের ফুলকি নৌকায় মজুদ থাকা জ্বালানি তেলের ড্রামে লাগলে আগুনের সূত্রপাত হয়। এ সময় জেলেরা আগুন নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করে। ততক্ষণে আগুন ছড়িয়ে পরলে আগুনের তাপে নৌকায় থাকা গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণ হয়। এতে দগ্ধ হন ১৪জন জেলে। বাকিরা সাগরে লাফ দিলে অন্য একটি ট্রলার তাদের উদ্ধার করে।

তাদের চিৎকার শুনে স্থানীয়রা নৌকার আগুন নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করেন এবং স্থানীয় প্রশাসনকে জানান। স্থানীয়রা দগ্ধদের উদ্ধার করে কুতুবদিয়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করালে কর্তব্যরত চিকিৎসক দগ্ধ ৮ জেলের অবস্থা আশংকাজনক দ্রুত চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করেন।

এদিকে স্থানীয় সাংসদ আলহাজ্ব আশেক উল্লাহ রফিক ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে দগ্ধদের খুঁজখবর নিতে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আওরঙ্গজেব মাতবরকে প্রয়োজনীয় সহযোগিতা করার নির্দেশনা দিয়েছেন।

এদিকে অগ্নিকান্ডের খবর পেয়ে হাসপাতালে ছুটে যান কুতুবদিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ডাঃ মুহাম্মদ নুরের জামান চৌধুরী ও কুতুবদিয়া থানার ওসি মুহাম্মদ ওমর হায়দার। দগ্ধদের উন্নত চিকিৎসার জন্য প্রশাসনের উদ্যাগে চমেক হাসপাতালে পাঠানো হয়। ক্ষতিগ্রস্হ পরিবারের তালিকা প্রেরণ করার জন্য স্হানীয় চেয়ারম্যানকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা